কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭

নবনিয়োগপ্রাপ্ত সচিব মহোদয় কর্তৃক অধিদপ্তর পরিদর্শন এবং কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময়


প্রকাশন তারিখ : 2017-09-18

গত ২৪-০৮-২০১৭ তারিখে যোগদানকৃত শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব জনাব আফরোজা খান অদ্য ১৮ই সেপ্টেম্বর ২০১৭ অপরাহ্নে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয় পরিদর্শন করেন। এসময় তার সফর সঙ্গী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উপসচিব জনাব এবিএম সিরাজুল হক এবং সচিব মহোদয়ের একান্ত সচিব জনাব হাবিবুর রহমান (উপসচিব)। অত্র অধিদপ্তরের মহাপরিদর্শক জনাব মোঃ সামছুজ্জামান ভুইয়া (অতিরিক্ত সচিব), অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক জনাব ড. মোঃ আনোয়ার উল্ল্যাহ, এফসিএমএ, (যুগ্ম সচিব) এবং দপ্তরের উর্ধতন কর্মকর্তাগণ সচিব মহোদয়কে অভ্যর্থনা জানান।

সচিব মহোদয় শুরুতেই অধিদপ্তরের সভাকক্ষে সকল কর্মকর্তা-কর্মচারিদের সাথে পরিচিত হন এবং মতবিনিময় করেন। অধিদপ্তরের আবির্ভাব এবং ক্রমবর্ধমান অগ্রগতির বিষয়ে শুরুতেই মহাপরিদর্শক সচিব মহোদয়কে অবহিত করেন। এরপর একটি পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন-এর মাধ্যমে অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক সচিব মহোদয়কে অধিদপ্তরের বর্তমান কর্মকান্ড, অগ্রাধিকার এবংচলমান প্রকল্প সমূহের উপর আলোকপাত করেন। এরপর শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উপসচিব জনাব এবিএম সিরাজুল হক রেজিস্ট্রিকৃত কারখানার সংখ্যা বাড়ানো, শূন্য পদ পূরণ এবং এপিএ বাস্তবায়নের ব্যাপারে আলোচনা করেন। এপর্যায়ে সচিব মহোদয় অধিদপ্তরের যাবতীয় কার্যাবলী সম্পর্কে বিভিন্ন প্রশ্ন করেন এবং সকল কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করেন। পরিশেষে সচিব মহোদয় বেশ কিছু বিষয়ে সুস্পষ্ট দিক-নির্দেশনা প্রদান করেন। তার মধ্যে উল্লেখ্য যে, অধিদপ্তরের রেজিস্ট্রিকৃত কারখানার সংখ্যা বাড়ানোর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন, নবনিয়োগপ্রাপ্ত এবং সকলের সক্রিয় অংশগ্রহণের মাধ্যমে ইনোভেশন কার্যক্রম বাড়ানো, তৈরী পোশাক শিল্পের পাশাপাশি অন্যান্য সেক্টরকেও যথেষ্ট গুরুত্ব প্রদান, ওকুপেশনাল সেফটি এবং হেলথ ইন্সটিটিউট প্রতিষ্ঠা, কমপ্লায়েন্স কারখানার সংখ্যা বৃদ্ধিকরণ, ই-নথি ব্যবহার বৃদ্ধিকরণ, বিভিন্ন কার্যক্রমের মাধ্যমে অনলাইন লাইসেন্স প্রদান কার্যক্রমে কারখানা মালিকগণকে উদ্বুদ্ধকরণ এবং অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে একটি ডে-কেয়ার সেন্টার প্রতিষ্ঠার বিষয়ে দিকনির্দেশনা প্রদান করেন। সার্বিক আলোচনায় সচিব মহোদয় রাষ্ট্রের সামগ্রিক উন্নয়নে অত্র অধিদপ্তরের গুরুত্ব এবং কর্মরত সকল কর্মচারির দায়িত্ব আরোও অধিক মনন এবং নিষ্ঠার সাথে পালনের তাগিদ দেন। 


Share with :
Facebook Facebook